এমপি এনামুল হকের খাদ্য সহায়তা পেল ১০ হাজার পরিবার।

0
5

এমপি এনামুল হকের খাদ্য সহায়তা পেল ১০ হাজার পরিবার।

এম এচ এইচ শাহাদত হোসেন,বাগমারা প্রতিনিধি:-
প্রকাশঃ ১৫/০৯/২০২০ সময়ঃ ০১:২৭ pm


করোনা সংকটে খাদ্য সমস্যা মোকাবেলায় জনসাধারণের পাশে দাঁড়িয়েছেন রাজশাহীর বাগমারা আসনের সংসদ সদস্য ইঞ্জিনিয়ার এনামুল হক।

তিনি ব্যক্তিগত উদ্যোগে উপজেলা আ’লীগের দলীয় কার্যালয় বঙ্গবন্ধু স্মৃতি জাদুঘর কমপ্লেক্সে চালু করেছেন কন্ট্রোল রুম।

বাগমারায় এমপি এনামুল হকের খাদ্য পেল ১০ হাজার পরিবার
বাগমারায় এমপি এনামুল হকের খাদ্য পেল ১০ হাজার পরিবার
এরই মধ্যে ব্যক্তিগত উদ্যোগে উপজেলার ১৬টি ইউনিয়ন ও ২টি পৌরসভায় ১০ হাজার পরিবারে খাদ্য সহায়তা প্রদান করা হয়েছে।

উপজেলার প্রত্যন্ত এলাকায় গরীব, দুস্থ, অসহায়, ছিন্নমূল, মধ্যবিত্তের পাশাপাশি যে সকল পরিবার খাদ্য সংকটে রয়েছে তাদের বাড়িতে খাদ্য সামগ্রী পৌঁছে দিচ্ছেন কন্ট্রোর রুমের সদস্যা।

এছাড়াও উপজেলা জুড়ে যতগুলো চা বিক্রেতা, ভ্যান চালক সহ ছিন্নমূল পরিবার রয়েছে সর্ব প্রথম তাদের বাড়িতে খাদ্য সহায়তা নিশ্চিত করা হয়েছে।

ইঞ্জিনিয়ার এনামুল হক করোনা সংকটের শুরু থেকেই সাধারণ মানুষের পাশে ছুটেএসেছেন খাদ্য সামগ্রী নিয়ে।

এই কন্ট্রোল রুমে সার্বোক্ষণিক ৪ জন দলীয় নেতৃবৃন্দ দাযিত্ব পালন করছেন। চালু রাখা হয়েছে হটলাইন নাম্বার।

স্বাস্থ্য ও খাদ্য সমস্যায় যে কেউ ফোন করে পাচ্ছেন দ্রুত সময়ের মধ্যে কাংক্ষিত সেবা। উপজেলাবাসীর যে কোন সমস্যা মোকাবেলায় সর্বদায় কাজ করে চলেছে এই কন্ট্রোল রুম।

এখান থেকে খাবার সংগ্রহ করতে পেরে সংকট মূহুর্তে হাসি ফুটেছে অসহায়দের মুখে। এই কাজটাই একজন জনপ্রতিনিধির হওয়া উচিত। দিবারাত্রি জনকল্যাণে কাজ করছে কন্ট্রোল রুমের সদস্যরা।

কন্ট্রোল রুমের দায়িত্বে রয়েছেন উপজেলা আ’লীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক অধ্যক্ষ গোলাম সারওয়ার আবুল, সহ-দপ্তর সম্পাদক নুরুল ইসলাম, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান আসাদুজ্জামান আসাদ এবং শ্রীপুর ইউনিয়ন আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক, সাংসদের প্রেস সচিব প্রভাষক জিল্লুর রহমান।

তারা বলেন, এমপি এনামুল হকের পক্ষ থেকে আমরা খাদ্য সংকটে রয়েছে তাদের বাড়িতে খাদ্য সামগ্রী পৌঁছে দিচ্ছি।

কেউ যেন খাদ্য সংকটে কষ্ট না পায় সেদিক বিবেচনা করেই যে কোন ভাবে সেই ব্যক্তি বা পরিবারের নিকট খাদ্য সরবরাহ করা হচ্ছে।

স্থানীয় ইউনিয়ন এবং পৌর আ’লীগের নেতৃ বৃন্দের সহযোগিতায় এই কাজটি করা হচ্ছে।
এ ব্যাপারে বাগমারা আসনের সংসদ সদস্য ইঞ্জিনিয়ার এনামুল হক বলেছেন, করোনা সংকটে লোকজনের ব্যবসা-বাণিজ্য সহ সকল প্রকার কর্মকান্ড বন্ধ থাকায় খাদ্য সমস্যায় পড়তে হয়েছে তাদেরকে।

কেউ যেন না খেয়ে থাকে সে জন্য কন্ট্রোল রুমের মাধ্যমে বাড়ি বাড়ি গিয়ে খাদ্য সহায়তা প্রদান করা হচ্ছে।

এই সমস্যা স্বাভাবিক না হওয়া পর্যন্ত খাদ্য সহায়তা কার্যক্রম অব্যাহত রাখা হবে। সেই সাথে সরকারের সকল নির্দেশনা সবাইকে মেনে চলার আহ্বান জানিয়েছেন তিনি।

Leave a Reply