চুয়াডাঙ্গা ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের ভ্রাম্যমান অভিযান ও জরিমানা আদায়।

0
38

চুয়াডাঙ্গা ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের ভ্রাম্যমান অভিযান ও জরিমানা আদায়।

তুহিনুর রহমান সোহাগ
চুয়াডাঙ্গা প্রতিনিধিঃ-

আজ ২৬শে নভেম্বর, ২০২০ তারিখ জাতীয় ভোক্তা-অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের শ্রদ্ধেয় মহাপরিচালক মহোদয়ের তত্ত্বাবধানে এবং জেলা প্রশাসক মহোদয়, চুয়াডাঙ্গা এর সার্বিক নির্দেশনায় চুয়াডাঙ্গা জেলা কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক জনাব সজল আহমেদ এর নেতৃত্বে দামুড়হুদা উপজেলার কার্পাসডাঙ্গা ও কলোনীপাড়া এলাকায় ভ্রাম্যমাণ অভিযান পরিচালিত হয়।

অভিযানে কার্পাসডাঙ্গা বাজারে মেসার্স হারুন স্টোরে অননুমোদিত, ভেজাল ও মেয়াদ মুল্য বিহীন শিশু খাদ্য ও অন্যান্য পণ্য বিক্রয়ের অপরাধে প্রতিষ্ঠানটিকে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইন-২০০৯ এর ৩৭,৪১ ধারায় ২০,০০০/- টাকা জরিমানা করা হয়। পরে কলোনীপাড়ায় মেসার্স জিপি ডেক্সট্রোজ গ্লুকোজ কারখানায় অভিযানে দেখা যায় গ্লুকোজের বস্তায় মেয়াদ নাই এবং যে গ্লুকোজ ২০২১ সালের জুন মাসে মেয়াদ উত্তীর্ণ হবে এগুলো তারা প্যাকেটজাত করে ২০২২ সাল পর্যন্ত মেয়াদ দিচ্ছে যা সম্পুর্ন ভোক্তা অধিকার আইনের পরিপন্থি কাজ। এছাড়া কিছু মোমবাতি তৈরি করে ঢাকার একটি প্রতিষ্ঠানের নামে বাজারজাত করছে। উক্ত অপরাধে প্রতিষ্ঠানটিকে ৩৭ ধারায় ১০,০০০/- টাকা জরিমানা করা হয় এবং ভবিষ্যতে আর এধরণের কাজ না করার জন্য সাবধান করে দেওয়া হয়। অভিযানে ০২টি প্রতিষ্ঠানকে মোট ৩০,০০০/- টাকা জরিমানা করা হয়। এসময় আরও বেশকিছু প্রতিষ্ঠান তদারকি করা হয়। সবাইকে মুল্যতালিকা প্রদর্শন ও অননুমোদিত অবৈধ পণ্য বিক্রয় না করার জন্য নির্দেশনা দেয়া হয়। অভিযানের সময় উপস্থিত জনসাধারণকে ভোক্তা অধিকার বিষয়ে সচেতন করা হয়।

অভিযানে সহযোগিতায় ছিলেন চুয়াডাঙ্গার নবনিযুক্ত নিরাপদ খাদ্য অফিসার জনাব মোঃ মিলন মিয়া।
নিরাপত্তায় ছিলেন চুয়াডাঙ্গা জেলা পুলিশের একটি টিম।
জনস্বার্থে এরূপ কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে।

Leave a Reply