শিবগঞ্জের চককির্ত্তি ইউনিয়নে ৭০টি পরিবার পানিবন্দি, জনদূর্ভোগ চরমে।

0
11

শিবগঞ্জের চককির্ত্তি ইউনিয়নে ৭০টি পরিবার পানিবন্দি, জনদূর্ভোগ চরমে।

হাফিজুর শিবগঞ্জ উপজেলা প্রতিনিধিঃ

চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলার শিবগঞ্জ উপজেলার চককির্ত্তি ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ডের পঁচা বাজার গ্রামের প্রায় ৭০টি পরিবার পানিবন্দি অবস্থায় মানবেতর জীবন যাপন করে আসছে। অতিবৃষ্টির ফলে, পানি নিসকাস্বেন পথ বন্দ করে দেওয়া কারনে এই জলাবদ্ধতা।অসহায়দের পাশে দাঁড়ানোর মতো কেউ নেই। স্থাণীয় চেয়ারম্যান, উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তার দ্বারস্থ হয়েও কোন লাভ হয়নি বলে ভূক্তভোগিরা জানান।

সরেজমিনে ভূক্তভোগি ও এলাকাবাসীর ক্ষোভ প্রকাশের মাধ্যমে জানা গেছে, প্রায় চার বছর ধরে ওই এলাকার মানুষ বৃষ্টি মৌসুম হলেই পানিবন্দি হয়ে পড়ে। ইতিপূর্বে পানি নিস্কাসনের জন্য সরকারিভাবে ক্যানেল ব্যবস্থা থাকলেও স্থাণীয় আলকাশ আলীর ছেলে তৈয়মুর রহমান তার লোকজন নিয়ে অমানবিকভাবে ক্যানেলের অপর মুখ বন্ধ করে দেয়। পানি নিস্কাশনের ক্যানেলটি সরকারি জমির উপর থাকলেও তৈয়মুর রহমানের লোকজন গায়ের জোরে পানি নিস্কাশন বন্ধ করে আখ মাড়াই কলের চুলা তৈরি করে প্রায় হাজার খানেক মানুষের জীবনে দুর্ভোগ ডেকে এনেছে। ফলে পানি নিস্কাশন একেবারে বন্ধ হয়ে যাওয়ার ফলে পানি বন্দি হয়ে পড়ে এলাকার ৬০টি পরিবার।

ভূক্তভোগী ও স্থাণীয়দের সাথে কথা বলে জানা গেছে, প্রতি বছর বর্ষা মৌসুমের শুরুতেই পানি বন্দি হয়ে পড়ে এখানকার মানুষগুলো। প্রতিটি বাড়ির ভিতর দির্ঘ সময় ধরে পানি ধরে থাকার রান্না, খাওয়া-দাওয়া, নামজ পড়া সবকিছুতেই চরম ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে। পানি বন্দি হয়ে স্থাণীয় গোরস্থান ডুবে যাওয়ার কারনে কেউ মারা গেলে মৃতের দাফন কাফন কাজ করতে চরম বেকায়দার মুখোমুখি হচ্ছে।

এব্যাপারে চককির্ত্তি ইউনিয়ন সদস্য ও প্যানেল চেয়ারম্যান আঃ সালাম জানান, একমাত্র তৈয়মুর রহমানের লোকজনের কারনে দির্ঘ সময় ধরে পানি বন্দি হয়ে চরম ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে তাদের। এব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে বিষয়টি অবহিত করা হয়েছে দ্রুত সমাধানের লক্ষে।

প্রধানমন্ত্রী ও উর্ধত্বন কর্মকর্তাদের কাছে ভূক্তভোগিদের প্রাণের দাবি, এখান থেকে দ্রুত পানি নিস্কাশনের স্থায়ী সমাধান করা হোক।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সাকিব আল রাব্বি’র সাথে মুঠোফোনে কথা হলে তিনি জানান, সমস্যাজনিত জায়গায় দ্রুত পানি নিস্কাশনের জন্য স্থাণীয় চেয়ারম্যানকে দায়ীত্ব দেওয়া আছে।

Leave a Reply