পাবনা-৪ (ঈশ্বরদী-আটঘরিয়া) আসনের বিএনপি মনোনীত প্রার্থী হাবিবুর রহমান হাবিব সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে নির্বাচনী ইশতেহার ঘোষণা করেছেন।

0
6

পাবনা-৪ (ঈশ্বরদী-আটঘরিয়া) আসনের বিএনপি মনোনীত প্রার্থী হাবিবুর রহমান হাবিব সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে নির্বাচনী ইশতেহার ঘোষণা করেছেন।

মোঃ রেজাউল করিম বাবু
ভ্রাম্যমাণ প্রতিনিধি, পাবনা।

বুধবার (২৩ সেপ্টেম্বর) দুপুরে ঈশ্বরদী প্রেসক্লাব মিলনায়তনে বিএনপির এক সংবাদ সম্মেলনে হাবিবুর রহমান হাবিব লিখিত ইশতেহার পাঠ করেন।

ইশতেহারে ঈশ্বরদী উপজেলা মাদকের ট্রানজিট হিসেবে ব্যবহৃত হচ্ছে বলে উল্লেখ করে ঈশ্বরদী-আটঘরিয়া হতে মাদক মুক্ত সমাজ গঠন করা, শিক্ষাঙ্গনে সন্ত্রাসী কার্যক্রম বন্ধ করে মানসম্মত শিক্ষার পরিবেশ নিশ্চিত করা, ঈশ্বরদীতে একটি কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপন, ঈশ্বরদীতে উন্নত মানের হাসপাতাল স্থাপন ও আধুনিক সুযোগ সুবিধা নিশ্চিত করা, ঈশ্বরদী রেলগেটে ত্রি-মুখী ফ্লাইওভার নির্মাণ, রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ প্রকল্পে কর্মরত কর্মকর্তা-কর্মচারী তথা গ্রামবাসীর নিরাপত্তা নিশ্চিত করা এবং পাকশীবাসীর চলমান উচ্ছেদ সমস্যার সমাধান করাসহ বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কাজের কথা তুলে ধরা হয়।

এ সময় হাবিবুর রহমান হাবিব তার বক্তব্যে বলেন, নির্বাচনে প্রচার-প্রচারণায় তার দলীয় নেতা-কর্মীদের বাধা দেয়া হচ্ছে। নেতাদের বাড়িতে বাড়িতে গিয়ে হুমকি দেয়া ও পোষ্টার ছিঁড়ে ফেলার অভিযোগ করা হয়। ইতিমধ্যে দুইটি স্থানে নির্বাচনী প্রচার মাইক ভাংচুর করা হয়েছে বলে উল্লেখ করা হয়।

বিএনপি চেয়ারপার্সনের বিশেষ সহকারী শামসুর রহমান শিমুল বিশ্বাস বলেন, আগামী দিনে যেকোনো নির্বাচনে বিশেষ করে পৌরসভা, উপজেলা ও ইউনিয়নের প্রত্যেকটা নির্বাচনে বিএনপিও ভদ্রভাবে বর্তমান স্বৈরশাসকের মোকাবেলা করবে।

কেন্দ্রীয় বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক রুহুল কুদ্দুস তালুকদার দুলু বলেন, ১৯৯৬ সালের পরে যে বিভেদের রাজনীতি ঈশ্বরদী-আটঘরিয়ার মাটিতে শুরু হয়েছিল ঈশ্বরদী- আটঘরিয়ার এই আসনে ৭৫/৮০ শতাংশ মানুষ বিএনপি সমর্থক হওয়ার পরও ষড়যন্ত্রকারীরা বারবার বিএনপির বিজয় ছিনিয়ে নিয়েছে। আজকে দীর্ঘ প্রায় ২৪ বছর পর বিএনপি ঐক্যবদ্ধ করতে সক্ষম হয়েছে। যেকোনো মূল্যে আমরা এবার বিজয় ছিনিয়ে আনবো।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন, বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক রুহুল কুদ্দুস তালুকদার দুলু, সাবেক সংসদ সদস্য বারী সরদার, সাবেক সংসদ সদস্য সিরাজুল ইসলাম সরদার, সাবেক সংসদ সদস্য সেলিম রেজা হাবিব, সাবেক সংসদ সদস্য কেএম আনোয়ারুল ইসলাম, বিএনপির চেয়ারপার্সনের বিশেষ সহকারী শামসুর রহমান শিমুল বিশ্বাস, কৃষক দলের কেন্দ্রীয় সদস্য সচিব কৃষিবিদ হাসান জাফির তুহিন, কেন্দ্রীয় মহিলা দলের দপ্তর সম্পাদক ললিতা গুলশান মিতা, বিএনপি নেত্রী ডলি খান প্রমুখ।

Leave a Reply