নীলফামারীতে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে অপহরণ করে আটকে রেখে ধর্ষণ করার অভিযোগে এক সন্তানের জনক গ্রেপ্তার।

0
6

নীলফামারীতে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে অপহরণ করে আটকে রেখে ধর্ষণ করার অভিযোগে এক সন্তানের জনক গ্রেপ্তার।

নীলফামারী প্রতিনিধিঃগত ১৬ সেপ্টেম্বর ২০২০ খ্রিস্টাব্দ, তারিখ দুপুর অনুমান ০১.১৫ ঘটিকায় (ছদ্মনাম)জয় চন্দ্র রায় থানায় আসিয়া অভিযোগ করেন যে তাহার নাবালিকা কন্যা ছদ্মনাম রানী দশম শ্রেণীতে পড়ুয়া ছাত্রী। কাউকে কিছু না বলে বাসা থেকে বের হয়,পরে তাকে অনেক খোঁজাখুঁজি করেও পাওয়া যায়নি। না পেয়ে তার পরিবারের লোকজন ডোমার থানায় থানায় নিখোঁজ সংবাদ প্রদান করে সাধারণ ডায়েরি করেন।

নীলফামারীতে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে অপহরণ করে আটকে রেখে ধর্ষণ করার অভিযোগে এক সন্তানের জনক গ্রেপ্তার।
স্বল্পমূল্যে বেশি প্রচার , মাত্র ৩০০ টাকায় ১ মাস বিজ্ঞাপন প্রচার করতে এখনী ক্লিক করুন

ডোমার থানা পুলিশ উক্ত সাধারণ ডায়েরির ভিত্তিতে তথ্য প্রযুক্তির সহায়তায় অফিসার ইনচার্জ এঁর তত্ত্বাবধানে ভিকটিম (ছদ্মনাম) রানীকে ঢাকা জেলার আশুলিয়া থানাধিন বাইপেল থেকে উদ্ধার এবং অপহরণকারী উত্তম রায় (২৪), গ্রামঃ গৌড়গ্রাম, উপজেলা ও জেলাঃ নীলফামারীকে অপহরণ ও ধর্ষণের অভিযোগে আটক করে পুলিশ ।

ভিকটিমকে জিজ্ঞাসাবাদে তার বাবার এজাহারের প্রেক্ষিতে ডোমার থানার মামলা নাম্বার ১৫, ধারা – নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইন ২০০০ এর ৭/৯(১)/৩০ রুজু করা হয়।

আসামিকে জিজ্ঞাসাবাদে সে ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে এবং বিজ্ঞ আদালতে স্বেচ্ছায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি প্রদান করেন।

ভিকটিমকে নীলফামারী সদর হাসপাতালে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য প্রেরণ করা হয়েছে। মামলাটি তদন্তাধীন এবং অন্য আসামিদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে।

Leave a Reply