নাটোরে বানভাসীদের কাঁন্না কাঁদালো মেয়রকেও!

0
29

নাটোরে বানভাসীদের কাঁন্না কাঁদালো মেয়রকেও!

পিন্টু স্যার নাটোর প্রতিনিধি:-

বন্যায় বানভাসী নারীর কষ্ট ছুঁয়ে গেল নাটোরের সিংড়া পৌরসভার মেয়র জান্নাতুল ফেরদৌসকেও। নদীগর্ভে বাড়িঘর ভিটেমাটি বিলীন হওয়া এক বৃদ্ধা মেয়র ফেরদৌসকে দেখে কান্নায় ভেঙ্গে পড়েন। তাকে বুকে জড়িয়ে অশ্রুসজল হয়ে ওঠে মেয়রের চোখদুটোও। সবার অলক্ষ্যে দুফোটা অশ্রু ঝরলো মেয়রের।

বৃহষ্পতিবার সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে এই ঘটনার ছবি ও ভিডিওচিত্র ভাইরাল হয়।

মেয়র ফেরদৌস তার ফেসবুক স্ট্যাটাসে লেখেন, মহান সৃষ্টিকর্তার পরে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার উপর আস্থা রেখে তাঁরই নেতৃত্বে এবং চলনবিলবাসীর প্রিয় সন্তান, আমার অভিভাবক তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের মাননীয় প্রতিমন্ত্রী আলহাজ্ব অ্যাডভোকেট জুনাইদ আহমেদ পলক ভাইয়ের নির্দেশনায় সিংড়া পৌরসভার নাগরিকদের সেবায় একজন সেবক হিসেবে কাজ করে যাচ্ছি।

২০১৫ সালে পৌরসভার নির্বাচনে সিংড়া পৌরবাসী আপনারা আমাকে স্নেহ মমতা ও পরম আদর ভালোবাসায় ভোট দিয়ে নির্বাচিত করেছিলেন। এতিম সন্তান হিসেবে আমাকে আপনারা আপনাদের বুকে তুলে নিয়েছিলেন। সেই থেকে আমার অভিভাবক মাননীয় তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক ভাইয়ের নির্দেশনায় আপনাদের জীবনমান উন্নয়নের জন্য দিনরাত সারাক্ষণ কাজ করে যাচ্ছি।

২০১৭ সালের ভয়াবহ বন্যা, ২০২০ সালের মহামারী করোনাভাইরাস থেকে শুরু করে এখন পর্যন্ত স্মরণকালের ভয়াবহ বন্যা যে কোনো দুর্যোগ পরিস্থিতিতে আমি সিংড়া পৌরবাসীর পাশে আছি।

সিংড়া পৌরসভার প্রত্যেকটি মানুষের কষ্ট আমি হৃদয় দিয়ে অনুভব করি। পৌরবাসীর বিন্দুমাত্র কষ্ট আমার জন্য সীমাহীন বেদনার।

পৌরবাসীর কষ্ট কখনো আমাকে ঘরের ভিতরে আটকে রাখতে পারেনি।

সবাই দোয়া করবেন একজন সেবক হিসেবে যেন আমি নিজেকে আমৃত্যু পৌরবাসীর সেবায় নিয়োজিত রাখতে পারি।

Leave a Reply