বিবাহের প্রতিশ্রুতি দিয়ে ধর্ষণ করে পালিয়ে যাওয়ার সময় এলাকাবাসীর হাতে আটক ধর্ষক আবু তালেব।

0
11

বিবাহের প্রতিশ্রুতি দিয়ে ধর্ষণ করে পালিয়ে যাওয়ার সময় এলাকাবাসীর হাতে আটক ধর্ষক আবু তালেব।

নীলফামারী প্রতিনিধিঃ

মোবাইল ফোনে পরিচয়সূত্রে আবু তালেব (২৭), গ্রাম-দক্ষিন বেরুবন্দ, উপজেলা-জলঢাকা, জেলা-নীলফামারী এর সাথে ভিকটিম (ছদ্মনাম) বানু বেগম (২২), স্বামী- (ছদ্মনাম) মোকসেদুল হোসেন, গ্রাম- বাবরীঝাড়, উপজেলা ও জেলা-নীলফামারীর ফোনালাপে এক সময়ে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে। এক পর্যায়ে আবুতালেব ভিকটিমকে বিবাহের আশ্বাস দিয়ে জলঢাকা উপজেলাধীন বেরুবন্দ বাজার এলাকায় দেখা করতে বলে।

গত ০১ অক্টোবর ২০২০ তারিখ রাত ১০.১৫ টার সময় ভিকটিমকে ডেকে এনে নির্জন এলাকার একটি পানি সেচ (মোটর) ঘরে ফুসলিয়ে একাধিকবার ধর্ষণ করে আবু তালেব। ধর্ষণ শেষে ভিকটিম আবু তালেবের সাথে যেতে চাইলে তাকে না নিয়ে আবু তালেব কৌশলে পালানোর চেষ্টা করে। ভিকটিম তার কৌশল বুঝতে পেরে জোরে জোরে চিৎকার করতে থাকে। তার চিৎকার-চেচামেচি শুনে এলাকার লোকজন ধাওয়া করে আবু তালেবকে ধরে ফেলে এবং এক পর্যায়ে আবু তালেব ধর্ষনের ঘটনা স্বীকার করে।

ঘটনা জানার পর এলাকার লোকজন আবু তালেব ও ভিকটিমকে আটক করে জলঢাকা ধানাধীন মীরগঞ্জ পুলিশ তদন্তকেন্দ্রে মোবাইল ফোনের মাধ্যমে ঘটনা অবহিত করলে মীরগঞ্জ পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের এসআই জনাব মোঃ সফিকুল ইসলাম ০২ অক্টোবর ২০২০ রাতে ঘটনাস্থলে গিয়ে আসামি ও ভিকটিমকে নিজ হেফাজতে গ্রহন করেন। এ বিষয়ে জলঢাকা থানায় একটি নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা হয়েছে। জলঢাকা থানার মামলা নং-০৪, তারিখ ০২ অক্টোবর ২০২০ খ্রিষ্টাব্দ নারী ও শিশুনির্যাতন আইন ২০০০ (সং/০৩) এর ৯ (১) এর আসামী কে বিজ্ঞ আদালতে সোপর্দ এবং ভিকটিমের ধর্ষণ জনীত ডাক্তারী পরীক্ষা সম্পন্ন করা হয়েছে।

Leave a Reply