এই প্রথম সাইকো চরিত্রে ইভান সাইর।

যাযাবর পলাশ, বিনোদন ডেস্কঃ ছাই বিক্রেতা দুইবোন। পেটের তাগিদে ঢাকার অলি-গলি ঘুরে ছাই বিক্রি করেন। সেদিন সকালটা শুরু হয়েছিল প্রতিদিনের মতোই। দুইবোন ছাইয়ের পুটলি নিয়ে অলি-গালি চিৎকার করে বেড়াচ্ছিলেন। কিন্তু দুই বোনের জীবনে হঠাৎ এমন কিছু ঘটে যাতে দিনের শেষটা প্রতিদিনের মতো হয় না। কী সেই ঘটনা? কে আসে দুই বোনের জীবনে। এই গল্পে সাইকোপ্যাথ ইভান সাইরই বা কী করছে, এসব জানা যাবে তিন মিনিটের টানটান উত্তেজনার ‘দ্যা অ্যাশ’ শিরোনামের একটি নতুন শর্টফিল্মে।

এই প্রথম সাইকো চরিত্রে ইভান সাইর।

একদম ব্যাতিক্রম একটি গল্পে সাজানো শর্টফিল্ম ‘দ্যা অ্যাশ’ নির্মাণ উপলক্ষে নাট্যকার, পরিচালক শোয়েব আহমেদ বলেন, ‘গল্পটা বহুদিন বাস করছিল মগজে। সব মিলিয়ে বানানো হয়ে উঠছিল না। এরমধ্যে লন্ডনের মাইরোড শর্টফিল্ম ফেস্টিভ্যালের সংবাদ দেখে বহুমুখী ব্যস্ততা পাশ কাটিয়ে বানিয়ে ফেললাম। ফেস্টিভ্যালে জমা দেওয়া হয়েছে।’
ফিল্মটি এই আসরে ভালো করলে দেশের মুখ উজ্জ্বল হবে বলে জানান তিনি।

অভিনেতা ইভান সাইর বলেন, অনেক চরিত্রেই তো অভিনয় করেছি। এই প্রথম সাইকোপ্যাথ চরিত্রে অভিনয় করলাম। চরিত্রটা খুবই চ্যালেঞ্জিং ছিল। তবে কলাকুশলীদের অভিব্যক্তি দেখে বুঝতে পেরেছি ভালোই ফুটিয়ে তুলতে পেরেছি। এখন দর্শকের অভিমত দেখে বোঝা যাবে কতটা সফল হয়েছি।

শানারেই দেবী শানু বলেন, আমরা যখন গলিতে গিয়ে বাসা বাড়ির উদ্দেশ্যে ছাই রাখবেন ছাই… বলে ডাক দিচ্ছিলাম, অনেক বাড়িওয়ালাই জানালা দিয়ে মাথা বের করেছিল ছাই রাখার জন্য। খুব মজা নিয়ে কাজটা করেছি। আশাকরি শোয়েব ভাইয়ের স্বপ্ন সফল হবে এর মাধ্যমে।

Leave a Reply