পাবনায় স্বামী ও শাশুড়ি নির্যাতনে গৃহবধূ হাসপাতালে ভর্তি।

0
5

পাবনায় স্বামী ও শাশুড়ি নির্যাতনে গৃহবধূ হাসপাতালে ভর্তি।

মোঃ রেজাউল করিম বাবু, পাবনা জেলা প্রতিনিধিঃ- পাবনার সাঁথিয়া উপজেলায় যৌতুকের টাকা না পেয়ে পাষন্ড স্বামী ও শাশুড়ির নির্যাতনে আহত হয়ে গৃহবধূ বিলকিস খাতুন হাসপাতালে ভর্তি।

ঘটনার বিবরণে জানা যায়, গতকাল মঙ্গলবার (৬ অক্টোবর) দিবাগত রাতে উপজেলার নন্দনপুর ইউনিয়নের হাটবাড়িয়া বোয়াইলমারী গ্রামে। গৃহবধূ বিলকিস খাতুনের ওপর পাশবিক নির্যাতন চালানো হয়। আর নির্যাতন চালিয়েছে পাষণ্ড স্বামী রবিউল ও শাশুড়ি।

উপজেলার ক্ষেতুপাড়া ইউনিয়নের বিষ্ণুপুর গ্রামের মৃত দুদু মিয়ার মেয়ে বিলকিস খাতুন।
এ বছর ২২ জুলাই উপজেলার হাটবাড়িয়া গ্রামের জালাল মিয়ার ছেলে রবিউলের সাথে তার বিয়ে হয়। বিয়ের সময় রবিউল দুই লাখ টাকা যৌতুক নেয়। বিয়ের দু’এক দিনের মধ্যেই বিলকিস বুঝতে পারে তার স্বামী অন্য নারীতে আসক্ত।

বিয়ের কিছুদিন পরেই আরও যৌতুকের দাবীতে এবং নানা অজুহাতে স্বামী ও শাশুড়ি মিলে তাকে নানাভাবে অত্যাচার, নির্যাতন করতে থাকে। মঙ্গলবার রাতে স্বামী ও শাশুড়ি মিলে কাঠ ও বাঁশের লাঠি দিয়ে বেধড়ক পিটিয়ে তাকে গুরুতর জখম করে। একই গ্রামের বাসিন্দা বিলকিসের দুলাভাই ইমারত আলী জানান, বিয়ের পর থেকেই শ্বশুরবাড়ির লোকজন বিলকিসকে শারিরীকভাবে নির্যাতন করে আসছে।

সাঁথিয়া হাসপাতালের আবাসিক মেডিক্যাল অফিসার ডাঃ আব্দুল্লাহ আল মামুন জানান, বিলকিসের মাথা ও সারা শরীরের বিভিন্নস্থানে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। তাকে প্রয়োজনীয় চিকিৎসা দেয়া হয়েছে।

সাঁথিয়া থানার উিউটি অফিসার এস আই মতিয়ার রহমান মুঠোফোনে জানান, এখনও পর্যন্ত এ ব্যাপারে থানায় কোন অভিযোগ আসেনি।

Leave a Reply