চুয়াডাঙ্গায় সেপটি ট্যাঙ্কে নেমে যুবক যুবতীর মর্মান্তিক মৃত্যু

0
2
চুয়াডাঙ্গায় সেপটি ট্যাঙ্কে নেমে যুবক যুবতীর মর্মান্তিক মৃত্যু

মোঃ সোহাগ,চুয়াডাঙ্গা জেলা প্রতিনিধিঃ-

চুয়াডাঙ্গা দামুড়হুদার কার্পাসডাঙ্গায় নির্মাণাধীন বাড়ির সেপটি ট্যাঙ্কের পানি পরিষ্কার করতে নেমে গৃহকর্তার মেয়ে আসমা খাতুন (১৬) ও দোকান কর্মচারি হাসিবুল ইসলাম (২২) এর মর্মান্তিক মৃত্যু হয়েছে। বৃহস্পতিবার বিকেল ৪টার দিকে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

জানা গেছে, চুয়াডাঙ্গার দামুড়হুদা উপজেলার কার্পাসডাঙ্গা বাজারপাড়ার এরশাদুল ইসলাম(ইশাদুল) মুদি দোকানি’র বাড়ির একাংশে নতুন করে নির্মাণ করছেন সেপটি ট্যাঙ্ক। দু’দিনের বৃষ্টির পানি ওই ট্যাঙ্কে জমে। এরশাদুল ইসলামের(ইশাদুল) মেয়ে আসমা খাতুন পানি পরিষ্কার করতে নিচে নামে। ট্যাঙ্কে নেমে আর উঠছে না দেখে তাকে তুলতে ওই ট্যাঙ্কে নামে দোকান কর্মচারী হাসিবুল ইসলাম।
কয়েক মিনিটের মধ্যে হাসিবুলও নিথর হয়ে মুখ থুবড়ে পড়ে থাকে।
খবর পেয়ে কার্পাডাঙ্গা পুলিশক্যাম্পের ইনচার্জ দ্রুত ঘটনাস্হলে ছুটে যান। দুজনের কোন সাড়া না পেলে স্থানীয়রা দর্শনা ফায়ার সার্ভিসে খবর দেন। দমকলের সদস্যরা দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌছে ট্যাঙ্কে বাতাস সরবরাহ করার পর দুজনের মৃতদেহ উদ্ধার করেন। ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরা বলেছেন, সেফটি ট্যাঙ্কে বিষক্ত গ্যাস তৈরি হয়। ওই গ্যাসের কারণে সেখানে অক্সিজেন থাকে না। নিচে নেমে দম বন্ধ হয়ে মারা যায়। এক্ষেত্রেও তেমনটিই ঘটেছে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে।দু জনের আকস্মিক মৃত্যুতে এলাকার পরিবেশ ভারী হয়ে যায়।স্বজনদের আহাজারীতে কেউই চোখের জল ধরে রাখতে পারিনি।লাশের ব্যাপারে এখনও কোন সিদ্ধান্ত হয়নি।

Leave a Reply