চুয়াডাঙ্গার দামুড়হুদায় সেফটিক ট্যাংকে নেমে যুবক যুবতীর মর্মান্তিক মৃত্যু

0
3
চুয়াডাঙ্গার দামুড়হুদায় সেফটিক ট্যাংকে নেমে যুবক যুবতীর মর্মান্তিক মৃত্যু

মোঃসোহাগঃ-চুয়াডাঙ্গা প্রতিনিধি (২৩-০৭-২০)
চুয়াডাঙ্গার দামুড়হুদায় নির্মাণাধীন বাড়ির সেফটিক ট্যাংকে নেমে দুইজনের মর্মান্তিক মৃত্যু হয়েছে।
গতকাল বৃহস্পতিবার বিকেলে উপজেলার কার্পাসডাঙ্গা গ্রামের বাজারপাড়ায় ওই দুর্ঘটনা ঘটে। নিহত আসমা খাতুন (১৬) একই গ্রামের মুদি দোকানী এরশাদুল ইসলামের মেয়ে ও হাসিবুল ইসলাম (২৭) একই উপজেলার কালিয়াবকরী গ্রামের মতলেব মন্ডলের ছেলে। খবর পেয়ে সেফটিক ট্যাংক থেকে ওই দু’জনের মরদেহ উদ্ধার করে ফায়ার সার্ভিসের একটি দল।
স্থানীয়রা জানান, কার্পাসডাঙ্গা বাজারের মুদি দোকানী এরশাদুল ইসলামের নির্মাণাধীন বাড়ির সেফটিক ট্যাংকে গত কয়েক দিনের বৃষ্টির পানি জমে। বিকেলে পানি পরিস্কার করতে যায় তার মেয়ে আসমা খাতুন। উপরে উঠতে না দেখে কিছুক্ষণ পর ওই ট্যাংকে নামে দোকানের কর্মচারী হাসিবুল ইসলাম। দু’জনের কোন সাঁড়া না পেয়ে ফায়ার সার্ভিসে খবর দেন স্থানীয়রা। খবর পেয়ে ওই সেফটিক ট্যাংক থেকে তাদের দু’জনের মরদেহ উদ্ধার করে চুয়াডাঙ্গা ও দর্শনা ফায়ার সার্ভিসের একটি দল।
চুয়াডাঙ্গা ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের উপ-সহকারি পরিচালক আব্দুস সালাম জানান, সেফটিক ট্যাংকে নেমে পর্যাপ্ত অক্সিজেন না পাওয়ায় তাদের মৃত্যু হয়েছে।
এ বিষয়ে দামুড়হুদা মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুল খালেক জানান, ওই যুবক যুবতীর মরদেহের সুরতহাল প্রতিবেদন সম্পন্ন করা হয়েছে। নিহতদের পরিবারের পক্ষ থেকে থানায় অপমৃত্যুর মামলা করা হয়েছে। তাদের মরদেহ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। এদিকে, রাতেই স্থানীয় কবরস্থানে ওই যুবক যুবতীর দাফন কাজ সম্পন্ন হয়েছে।

Leave a Reply