দুলুর ব্যাংক হিসাব জব্দ করায় তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ।

0
9
মির্জা ফখরুল
  • পিন্টু স্যার,নাটোর প্রতিনিধি:-
  • প্রকাশ:- ০৭.০৯.২০২০, সময়:-১০.৪৫ pm

দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) কর্তৃক অবৈধ অর্থ উপার্জন সংক্রান্ত একটি মিথ্যা ও নিষ্পত্তিকৃত মামলা নতুন করে অনুসন্ধানের জেরে সাবেক উপ-মন্ত্রী, সংসদ সদস্য ও বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক এ্যাডভোকেট রুহুল কুদ্দুস তালুকদার দুলু এবং তার স্ত্রীর বিএনপি নেত্রী সাবিনা ইয়াসমিন ছবির ব্যাংক হিসাব জব্দ করার ন্যাক্কারজনক ঘটনায় তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর স্যার ।।

বিবৃতিতে বিএনপি মহাসচিব বলেন, “বর্তমান শাসকগোষ্ঠী নিজেদের ক্ষমতা চিরস্থায়ী করার জন্য নানা চক্রান্ত জাল বুনে যাচ্ছে। সরকারের চক্রান্ত হচ্ছে গণতন্ত্র, বিরোধী দল ও মতের প্রতি। নানা কায়দায় সরকারী জুলুমের আঘাত হানা হচ্ছে বিরোধী দলের নেতাকর্মীদের ওপর।।

এখন শুরু হয়েছে বিএনপি নেতৃবৃন্দের বিরুদ্ধে অন্যায়ভাবে দায়ের করা নিষ্পত্তিকৃত মামলাকে নতুনভাবে সাজিয়ে হেনস্তা করা।।বর্তমান সরকার সবদিক থেকে গণবিচ্ছিন্ন হয়ে পড়ার জন্যই বিরোধী দলকে পর্যুদস্ত করতে সবধরণের আক্রমণ চালিয়ে যাচ্ছে রাষ্ট্রযন্ত্রকে ব্যবহার করে।।

বৈশি^ক মহামারী করোনাকালেও বিরোধী দলের ওপর নিপীড়ণ-নির্যাতনের গতি স্তিমিত হয়নি।।বিএনপি’র সাংগঠনিক সম্পাদক এ্যাডভোকেট রুহুল কুদ্দুস তালুকদার দুলু এবং তার সহধর্মীনি সরকারের অমানবিক হয়রানীরই শিকার।।

তাদের বিরুদ্ধে ২০১৮ সালে দায়ের করা নিষ্পত্তিকৃত মামলা দুদক কর্তৃক নতুনভাবে অনুসন্ধান এবং তাদের ব্যাংক হিসাব জব্দের ঘটনা সম্পূর্ণরুপে রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত।।

রাজনৈতিকভাবে রুহুল কুদ্দুস তালুকদার দুলুকে হেয় প্রতিপন্ন করতেই তার বিরুদ্ধে দায়েরকৃত অবৈধ অর্থ উপার্জন সংক্রান্ত মিথ্যা মামলা যা নিষ্পত্তি হয়েছে, সেটিকে আবারও সামনে নিয়ে আসার অর্থই হলো শুধুমাত্র সরকারের প্রতিহিংসা পূরণ করা।।

ক্ষমতা শাসকগোষ্ঠীর বেপরোয়া এবং নজীরবিহীন দুর্নীতি ও লুটপাটের বিরুদ্ধে দেশে-বিদেশে এতই ধিক্কার উঠেছে যে, এটিকে ঢাকতেই পরিকল্পিতভাবে বিএনপি নেতার নিষ্পত্তিকৃত মামলার পুণ:রুজ্জীবন ঘটাচ্ছে।।

দুদক কর্তৃক এ্যাডভোকেট রুহুল কুদ্দুস তালুকদার দুলু এবং তার স্ত্রীর বিরুদ্ধে মিথ্যা ও নিষ্পত্তিকৃত মামলা পুণ:অনুসন্ধান এবং তাদের ব্যাংক হিসাব জব্দের ঘটনায় আমি তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি এবং অবিলম্বে রুহুল কুদ্দুস তালুকদার দুলু’র বিরুদ্ধে হয়রানীমূলক এই মামলা প্রত্যাহার ও তাদের ব্যাংক হিসাব খুলে দেয়ার জোর দাবি করছি।।”

Leave a Reply