আজ নাটোরের কৃতি ফুটবলার তানভির চৌধুরীর ২য় মৃত্যু বার্ষিকী

0
29

আজ নাটোরের কৃতি ফুটবলার তানভির চৌধুরীর ২য় মৃত্যু বার্ষিকী

পিন্টু স্যার, নাটোর প্রতিনিধি:- সেই দুর্ঘটনাই একেবারে কুড়ে কুড়ে খেয়েছে তাকে। জাতীয় দলের সাবেক এই ফুটবলার মনের শক্তিতেও তাও বেঁচে ছিলেন তিন বছর। আর পেরে উঠলেন না। সাবেক এই ফুটবলার রিয়াজ আলম খান চৌধুরী তানভীর ২০১৮ সালেরর ৯ অক্টোবর চলে গেলেন না ফেরার দেশে।

কৃতি এই খেলোয়ার ২০১৫ সালের ১৯ মে নাটোর শহরের কানাইখালীস্থ তার নিজ বাড়ি থেকে ঢাকা যাওয়ার সময় গুরুদাসপুরের কাছিকাটা এলাকায় বিপরীতমুখী একটি ট্রাকের সাথে সংঘর্ষে মারাত্মকভাবে আহত হন। তাকে রাজশাহী, ঢাকাসহ বিভিন্ন স্থানে চিকিৎসা দেওয়া হয়।

দুই মাসের বেশি সময় রাজধানীর একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলেন। মৃত্যুর দুয়ার থেকে তখন ফিরে এসে দীর্ঘদিন স্মৃতিশক্তি হারিয়েছিলেন সাবেক এ উইঙ্গার।পরবর্তীতে তিনি পঙ্গু হয়ে নিজ বাড়িতে অবস্থান করছিলেন। এরপর থেকে তিনি প্রতিনিয়ত নাটোর আধুনিক সদর হাসপাতালে চিকিৎসা নিতেন। স্মৃতিশক্তিও হারিয়ে ফেলেন এই তারকা ফুটবলার।

তানভীরের ব্যয়বহুল চিকিৎসার জন্য তার বন্ধু ফুটবলাররা সংবাদ সম্মেলন করে আর্থিক সহযোগিতা চেয়েছিলেন। সেভাবে সাড়া না পাওয়ায় অযত্ন আর অবহেলায় তার শরীরে অবনতি ঘটতে থাকে। জাতীয় দলের হয়েও মাঠ কাঁপিয়েছেন। তারপরও বাফুফের নীরবতা সবাইকে অবাক করেছে।

জাতীয় দলের সাবেক ফুটবলার রোকনুজ্জামান কাঞ্চন বন্ধু তানভীরের স্মৃতিচারণ করতে গিয়ে চোখে জল ধরে রাখতে পারেননি। বললেন, দুজনেই একসঙ্গে দীর্ঘদিন খেলেছি। সত্যিই এক অসাধারণ ফুটবলার ছিলেন তানভীর। দেশের জন্য খেলেছেন অথচ অবহেলায় না ফেরার দেশে চলে গেলেন তা কি মানা যায়?।

উল্লেখ্য, নাটোরের কৃতি ফুটবলার তানভীর চৌধুরী ১৯৯৫ সাল থেকে ফার্স্ট ডিভিশন লিগের মাধ্যমে ক্যারিয়ার শুরু করেন। ১৯৯৮ সালে এশিয়া কাপ খেলার মাধ্যমে জাতীয় দলে অন্তর্ভুক্ত হন।

জাতীয় দলের দাপুটে ফুটবলার হিসেবে তিনি ভারত, পাকিস্থান, নেপাল, শ্রীলংকা, ওমান, কাতার, লন্ডনসহ ১৪টি দেশে ফুটবল টুর্নামেন্টে অংশ নিয়েছিলেন। খেলতেন লেফ্ট মিড ফিল্ডার হিসাবে। তার প্রচণ্ড গতির কাছে প্রতিপক্ষের রক্ষণভাগ ভেঙ্গে চুরমার হয়ে যেত।

মুক্তিযোদ্ধা ক্রীড়া চক্র, ফেনী সকার, ব্রাদার্স ইউনিয়ন, আবাহনী ক্রীড়া চক্র, শেখ রাসেল ক্রীড়া চক্রের মত নামিদামি ফুটবল টিমে খেলে তানভীর কৃতিত্বের স্বাক্ষর রেখেছিলেন। ২০০৫ সালে শেখ রাসেল ক্রীড়া চক্রের প্রথম প্রতিষ্ঠার বছরেই রানার্সআপ ট্রফি জিতিয়ে দেওয়া ছিল তার ক্যারিয়ার সেরা অর্জন। তিনি শহরের চৌধুরী বাড়ির রেন্টু চৌধুরীর ছেলে।

স্ত্রী শাহ্দিল-ই-আফরোজ (আলো), ২ মেয়ে তাজবিতা ও তানবিতা,বৃদ্ধ বাবা মা রেখে যান ।
আজ নাটোরের কৃতি সন্তান ফুটবলার তানভির চৌধুরীর ২য় মৃত্যু বার্ষিকী। জাতীয় দলের সাবেক ফুটবলার নাটোরের কৃতিসন্তান সবার প্রিয় তানভীর চৌধুরী।২০১৮ সালের ৯ অক্টোবর মৃত্যুবরণ করেন।

Leave a Reply