পাবনায় যথাযথ গুরুত্বের সাথে পালিত হলো বিশ্ব মানসিক স্বাস্থ্য দিবস।

0
12

পাবনায় যথাযথ গুরুত্বের সাথে পালিত হলো বিশ্ব মানসিক স্বাস্থ্য দিবস।

মোঃ রেজাউল করিম বাবু, পাবনা জেলা প্রতিনিধিঃ

শনিবার (১০ অক্টোবর) সকাল ১০টায় “সবার জন্য মানসিক স্বাস্থ্য, অধিক বিনিয়োগ অবাধ সুযোগ” এই প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে পাবনা মানসিক হাসপাতালের আয়োজনে এক বর্ণাঢ্য র‌্যালী ক্যাম্পাস প্রদক্ষিণ করে। র‌্যালীতে নেতৃত্ব দেন পাবনা মানসিক হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক ডাঃ রতন কুমার রায়।

এরপর বেলা ১১ টায় হাসপাতালের কনফারেন্স রুমে “মেন্টাল হেলথ ফর অল, গ্রেটার ইনভেস্টমেন্ট-গ্রেটার এ্যাকসেস” বিষয়ে এক সায়েন্টিফিক সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়। সেমিনারে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন পাবনা মানসিক হাসপাতালের প্রাক্তন পরিচালক প্রখ্যাত মনোরোগ বিশেষজ্ঞ প্রফেসর ডাঃ তন্ময় প্রকাশ বিশ্বাস।

পাবনা মানসিক হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক ডাঃ রতন কুমার রায়ের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সহকারী প্রফেসর ডাঃ মোহাম্মদ আলী ও ডাঃ শাফকাত ওয়াহেদ। সেমিনারে কী-নোট পেপার উপস্থাপন করেন আরএমও ডাঃ এ কে এম শাফিউল আজম।

অনুষ্ঠানে বক্তারা বলেন পাবনা মানসিক হাসপাতাল মানসিক চিকিৎসার জন্য একটি মাইল ফলক। মুসলিমদের জন্য মক্কা যেমন পবিত্র, ঠিক তেমনি মানসিক রোগীদের চিকিৎসার জন্য পাবনা মানসিক হাসপাতালও পবিত্র।

বক্তারা আরো বলেন হাসপাতালে আমরা যারা দীর্ঘদিন দায়িত্ব পালন করেছি এর আদ্যোপান্ত আমরা সবই জানি। হাসপাতালটি ধুঁকে ধুঁকে চলছে। সরকারের এই বিশেষায়িত হাসপাতালের প্রতি বিশেষ গুরুত্ব দেয়া উচিত। দেশে মানসিক রোগীর সংখ্যা বাড়লে ও সাধারণ মানুষের মধ্যে সচেতনতা বাড়ছেনা, এমনকি ডাক্তারদের মধ্যেও এ বিষয়ে ভ্রান্ত ধারণা রয়েছে। অনেকেই এখনও প্রাথমিক পর্যায়ে কবিরাজের উপর নির্ভরশীল। এখনও বিভিন্ন জায়গায় কবিরাজী সাইনবোর্ড ঝুলতে দেখা যায়। সঠিক চিকিৎসা না পেয়ে রোগ অনেক সময় জটিল হয়ে যায়। তাই সেবার পরিধি তৃণমূল পর্যন্ত যাওয়া উচিত।

বক্তাগণ থাইল্যান্ডের চিকিৎসা ব্যবস্থার কথা উল্লেখ করে বলেন, সেখানে গ্রাম পর্যায়ে ভলান্টিয়ারদের মাধ্যমে চিকিৎসা সেবা রোগীর দোরগোড়ায় পৌঁছে দেয়া হয়। কেউ এই চিকিৎসা পেশায় আসেন বাইচান্সে, আবার কেউ আসেন বাইচয়েজে। যিনি বাইচয়েজে আসবেন তিনিই আন্তরিকতা দিয়ে এই পেশায় সেবা দিয়ে যেতে পারবেন।
প্রতিটি জেলা হাসপাতালে একজন করে মনোরোগ বিশেষজ্ঞ নিয়োগ দেয়া হবে। এটা সরকারের যথাযথ পদক্ষেপ। উপজেলা লেভেলে স্যাটেলাইটের মাধ্যমে সেবা দেয়া যেতে পারে বলেও উল্লেখ করেন।

Leave a Reply