পাবনার সুজানগরে দুই পক্ষের একই স্থানে সমাবেশ ডাকায় ১৪৪ ধারা জারি।

পাবনাঃ- পাবনার সুজানগর উপজেলার সাগরকান্দিতে একই স্থানে দুই পক্ষ সমাবেশ ডাকায় ১৪৪ ধারা জারি করেছে স্থানীয় প্রশাসন।

জানা যায়, সুজানগর উপজেলার সাগরকান্দি ইউপি চেয়ারম্যান শাহিন চৌধুরীর মুক্তির দাবিতে ও বিচার দাবিতে একই সময়ে দুই পক্ষ সমাবেশ ডাকায় সাগরকান্দি বাজারে আজ শুক্রবার (৩০ অক্টোবর) বিকেল ৩টা থেকে রাত ১০ টা পর্যন্ত এই ধারা বলবৎ থাকবে।

আমিনপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোজাম্মেল হক ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, বিকালে যে কোন অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে সুজানগর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সহ অতিরিক্ত পুলিশ নিয়ে আমরা সাগরকান্দি বাজারে অবস্থান করছি। তবে সন্ধ্যা সাড়ে ৬টা পর্যন্ত বাজারে কেউই কোন ধরনের সমাবেশ বা বিক্ষোভ করতে পারেনি। বাজারের বাহিরে চেয়ারম্যান পক্ষের লোকজন বিক্ষোভ করেছেন বলে শুনেছি।

তিনি আরো জানান, প্রতিপক্ষকে গুলি ছোঁড়ার অভিযোগে একটি মামলায় কোর্টে হাজিরা দিতে গেলে ইউপি চেয়ারম্যান শাহীন চৌধুরী ও তার ভাতিজা রবিন চৌধুরীকে কারাগারে পাঠিয়েছে আদালত।
মঙ্গলবার বিকালে পাবনার আমলি আদালত-৬ এর বিচারিক হাকিম মিলন হোসেন এই আদেশ দেন বলেও তিনি নিশ্চিত করেছেন বাদীপক্ষের আইনজীবী আজিজুল হকের বরাত দিয়ে।

ওই মামলার বাদী সাগরকান্দী ইউনিয়ন যুবলীগের গ্রন্থনা ও প্রকাশনা সম্পাদক হাশমত খলিফা জানান, ২০১৮ সালের ২৮ নভেম্বর তারিখে পূর্ব শত্রুতার জের ধরে চেয়ারম্যান শাহীন চৌধুরী দলবল নিয়ে তার ওপর হামলা চালান। এক পর্যায়ে চেয়ারম্যানের নির্দেশে তার ভাতিজা রবিন চৌধুরী তাকে হত্যার উদ্দেশে প্রকাশ্যে গুলি চালান।

গুলিটি তার পায়ে লাগায় তিনি গুরুতর আহত হলেও প্রাণে বেঁচে যান। এঘটনায় তিনি আমিনপুর থানায় ১৩ জনকে আসামি করে একটি মামলা করেছিলেন। পরে তার আবেদনের প্রেক্ষিতে মামলাটি পিবিআইতে (পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন) স্থানান্তর করা হয়।

পিবিআই এর তদন্তকারী কর্মকর্তা ছিলেন মোঃ আসাদুজ্জামান তদন্ত শেষে ঘটনার সত্যতা পায়। সে মোতাবেক আদালতে সম্প্রতি চার্জশিট দাখিল করেন। গত মঙ্গলবার ওই মামলার শুনানির দিন ধার্য ছিল। এতে মামলার ১৩ আসামি আদালতে হাজির হন।

আদালত মামলার ১১ আসামিকে জামিন দেন আর সাগরকান্দি ইউপি চেয়ারম্যান শাহীন চৌধুরী ও তার ভাতিজা রবিন চৌধুরীকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

সুজানগর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রওশন আলী জানান, এ ঘটনার পর সাগরকান্দি ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পক্ষ ও তার বিরোধী পক্ষ পৃথক পৃথক সমাবেশের ডাক দেন।

শুক্রবার বিকাল ৫টায় সাগরকান্দি বাজারে এই সমাবেশ হওয়ার কথা ছিল। পরে স্থানীয় প্রশাসন বিষয়টি নিশ্চিত হয়ে সাগরকান্দি বাজারে ১৪৪ ধারা জারি করে মাইকিং করা হয়েছে।

তিনি আরো জানান, যে কোন অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতেই উপজেলা প্রশাসন এই সিদ্ধান্ত গ্রহন করেছেন। সেখানে এখনো অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন রয়েছে। বিকেল ৩টা থেকে রাত ১০টা পর্যন্ত এই ধারা বলবৎ থাকবে।

Author: admin

Leave a Reply