হারলে ২০২৪ সালের নির্বাচনে অংশ নেবেন ট্রাম্প!

0
56
এবার যদি হারেন তবে সামনেবার ২০২৪ সালের নির্বাচনে আবারো প্রার্থী হিসেবে যোগ দেবেন ট্রাম্প। যুক্তরাষ্ট্রের সংবিধান বলছে একজন ব্যক্তি দুইবারের বেশি প্রেসিডেন্ট হতে পারবেন না। তবে প্রেসিডেন্ট পদের জন্য দুইবারের বেশি নির্বাচনে লড়তে পারবেন না এমন কোন নিয়ম নেই। তাছাড়া ‘২৪ সালে ট্রাম্পের বয়স হবে ৭৮ বছর। এবারের নির্বাচনে তার প্রতিদ্বন্দ্বী জো বাইডেনের বর্তমান বয়স ৭৭। 
হারলে ২০২৪ সালের নির্বাচনে অংশ নেবেন ট্রাম্প!
ফাইল ফটো
ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম ইন্ডিপেন্ডেন্টের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ট্রাম্পের সাবেক পরামর্শক ব্রায়ান লানজা বিবিসির রেডিও ফোরকে বৃহস্পতিবার এ তথ্য জানিয়েছেন। গণমাধ্যমকে তিনি বলেছেন, ট্রাম্প শক্তভাবে ফিরে আসতে পারেন। আশা করছি সামনের নির্বাচনেও তাকে দেখা যাবে।
লানজা জানিয়েছেন, ট্রাম্প এবারের হাড্ডাহাড্ডি ভোটে হেরে গেলেও পরেরবার ভালো সম্ভাবনা নিয়ে তিনি ফের প্রেসিডেন্ট প্রার্থী হতে পারবেন। এক্ষেত্রে আইনি কোনো বাধাও নেই।
তিনি বলেন, ২০২৪ সালে ট্রাম্প যে বয়সে পৌঁছাবেন, সেটি এখন বাইডেনের যে বয়স আছে তার থেকে মাত্র ১ বছর বেশি হবে । ফলে সে সময়ে তার জন্য বয়স কোনো প্রতিবন্ধকতা হবে না।
ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম দ্য গার্ডিয়ান জানায়, আর পাঁচটি অঙ্গরাজ্যের পপুলার ভোটের ফল জানা বাকি। এর মধ্যে পেনসিলভানিয়া, নর্থ ক্যারোলিনা, জর্জিয়া ও আলাস্কায় এগিয়ে রয়েছেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। এ চারটি অঙ্গরাজ্যের সম্মিলিত ইলেক্টোরাল ভোট রয়েছে ৫৪টি।
হারলে ২০২৪ সালের নির্বাচনে অংশ নেবেন ট্রাম্প!
ফাইল ফটো

অর্থাৎ এগিয়ে থাকা চারটি রাজ্যে জিতলে ট্রাম্পের মোট ইলেক্টোরাল ভোট হবে ২৬৮টি। যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট হতে প্রয়োজন হয় ন্যূনতম ২৭০ ভোট। বিপরীতে, শুধু নেভাদায় এগিয়ে রয়েছেন জো বাইডেন। এ অঙ্গরাজ্যের ইলেক্টোরাল ভোট রয়েছে ছয়টি। সুতরাং, এই একটি রাজ্যের জয়ই তার সংখ্যাগরিষ্ঠতা নিশ্চিত করতে যথেষ্ঠ।

তবে নেভাদায় বিজয় এত সহজ হচ্ছে না বাইডেনের। ৭৫ শতাংশ ভোট গণনা শেষে প্রতিদ্বন্দ্বীর চেয়ে মাত্র আট হাজার ভোটে এগিয়ে রয়েছেন তিনি। এখনও ৩ লাখ ৯৮ হাজার ভোট গণনা বাকি। ফলে যেকোনও সময় পাল্টে যেতে পারে সব হিসাব-নিকাশ।

Leave a Reply