সাংবাদিক পরিচয়ে নারীর পেটের ভেতরে ইয়াবা পাচার

0
44

সাংবাদিক পরিচয়ে নারীর পেটের ভেতরে ইয়াবা পাচার

পেটের ভেতরে করে ইয়াবা পাচারকালে মোসাম্মদ শ্রাবনী আক্তার ওরফে লিপি আক্তার (২৫) নামে এক নারীকে আটক করেছে ডিবি পুলিশ সদস্যরা।

বৃহস্পতিবার বিকেলে পটুয়াখালীর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার শেখ বিল্লাল হোসেনের নেতৃত্বে পটুয়াখালী-বরিশাল মহাসড়কের পটুয়াখালী সেতুর টোল প্লাজা থেকে ওই নারীকে আটক করা হয়।

পরে শহরের একটি ক্লিনিকে নিয়ে তার পেট এক্সরে করা হলে পেটের ভেতরে একাধিক প্যাকেট ইয়াবা সাদৃশ্য বস্তু দেখা গিয়েছে বলে নিশ্চিত করে পুলিশ। অভিযান পরিচালনার সময়ে ওই নারীর কাছ থেকে গণমাধ্যমের পরিচয় পত্র উদ্ধার করেছে পুলিশ।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার শেখ বিল্লাল হোসেন জানান, বরিশাল থেকে ভাড়াটে মোটর সাইকেলযোগে বিপুল পরিমাণ ইয়াবা শরীরে ধারণ করে এক নারী পটুয়াখালীর উদ্দেশে রওনা হয়েছে- এমন তথ্যের ভিত্তিতে পুলিশ অভিযান চালায়। একপর্যায়ে তার নেতৃত্বে পটুয়াখালী ডিবি পুলিশের একটি দল পটুয়াখালী-বরিশাল মহাসড়কের পটুয়াখালী সেতুর টোল প্লাজাস্থলে ওৎ পেতে থাকে।

কিছুক্ষণ অতিবাহিত হলে এক নারী টোল প্লাজা অতিক্রম করলে তাকে আটক করা হয়। এসময় আটককৃত লিপি ইয়াবা বহনের বিষয়টি অস্বীকার করলে পুলিশ লিপিকে শহরের বায়োসেভ ক্লিনিকে নিয়ে পেট এক্সরে করায়। ওই এক্সরে ইয়াবা সাদৃশ্য বস্তু বহনের বিষয়টি নিশ্চিত করে পুলিশ। এক্সরে রিপোর্টে দেখা যায় অন্তত দশটি প্লাষ্টিক প্যাকেট রয়েছে ওই নারীর পেটের ভেতরে।

অভিযানকালে ওই নারীর কাছ থেকে “দৈনিক হক ইনসাফ” নামীয় একটি গণমাধ্যম প্রতিষ্ঠানের পরিচয় পত্র উদ্ধার করে পুলিশ। তবে অজ্ঞাত কারণে গণমাধ্যমের ওই পরিচয় পত্রে সঠিক নামের বদলে শ্রাবনী আক্তার নাম ব্যবহার করা হয়েছে বলে স্বীকার করে ওই নারী।

আটককৃত লিপি জানান, বরিশাল থেকে ইয়াবা ক্রয় করে পটুয়াখালী-বরগুনায় সরবরাহ করে থাকেন তিনি। তিনি বরগুনা জেলার গোলবুনিয়া ৬ নং বুনিয়ার চরের বাসিন্দা মো. লিটন হাওলাদারের মেয়ে।

Leave a Reply