পাইলটকে রাস্তায় নামিয়েছে করোনা, বিক্রি করছেন খাবার ?

0
15
গত বছরের শেষ দিকে চীনের উহান শহরে সূত্রপাত হয় করোনাভাইরাসের। এরপর তা ছড়িয়ে পড়ে বিশ্বব্যাপী। লাখ লাখ মানুষ এ ভাইরাসে মৃত্যুবরণ করেন। আক্রান্তও হয়েছে কয়েক কোটি। ব্যস্ত পৃথিবীতে নেমে আসে নিস্তব্ধতা। ভয় আর শোক। শুধু কি তাই? বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে পড়া প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের ধাক্কায় বিপর্যস্ত হয় বিশ্ব অর্থনীতি। দেশে দেশে সীমান্ত বন্ধ হয়ে যাওয়ায় সবচেয়ে বেশি বিপাকে পড়ে বিমান সংস্থাগুলো। ফলে ছাঁটাইয়ের শিকার হতে হয় অনেক পাইলটকে।
মালয়েশিয়ার নাগরিক আজরিন মোহাম্মদ জাওয়াহি এমনই একজন পাইলট। চাকরি হারিয়ে জীবিকার তাগিদে আকাশ থেকে রাস্তায় নেমে এসেছেন তিনি।
ছয় সদস্যের সংসার চালাতে রাজধানী কুয়ালালামপুরে খাবারের ছোট একটি দোকান খুলে বসেছেন ৪৪ বছর বয়সী এই পাইলট। তবে মজার ব্যাপার হচ্ছে ক্রেতাদের আকৃষ্ট করতে দোকানে পাইলটের পোশাক পরেই সেবা দিচ্ছেন তিনি। মাথায় কালো টুপি। গায়ে সাদা পোশাক। দূর থেকে দেখলেই বোঝা যাবে কোনও বিমানের চালক। কিন্তু কাছে গেলে দেখা যাবে, সেই পোশাকের উপর আবার রান্নার অ্যাপ্রোন। বিমানের কন্ট্রোলারের জায়গায় হাতে রান্নার সরঞ্জাম। পথচারী মানুষরাও আচমকা তাকে অবাক হয়ে যায়।
রাস্তার পাশে আজরিনের সেই রেস্তোরাঁর নাম ক্যাপ্টেন কর্নার। নুডলসসহ বিভিন্ন মালয়েশিয়ান ফুড নিজেই রান্না করেন চাকরিচ্যুত এ পাইলট। তার রান্নার হাতটিও কিন্তু দুর্দান্ত। তাই কয়েকদিনের মধ্যে বেশ সুনাম অর্জন করেন তিনি।
আজরিনের জীবনের এ ঘটনা জানা যায় সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম থেকে। সেখানে একটি ভিডিও পোস্ট করেন তার স্ত্রী। মুহূর্তেই সেটি ভাইরাল হয়ে যায়। এরপর আরও ক্রেতা জুটে যায় ওই কর্নারের।
চার সন্তানের জনক আজরিন এখন রীতিমতো সেলিব্রেটি। নেটিজেনদের অনেকেই তার এ সংগ্রামী জীবনের প্রশংসা করেছে।

Leave a Reply