যশোরে বড় ভাই হত্যা ঘটনায় ছোট ভাইকে আসামী করে মামলা।

0
10

মোস্তফা কামাল যশোর ঃ-  নিহত মিরাজের স্ত্রী সাথী খাতুন (২৪) শনিবার কোতয়ালি থানায় স্বামী হত্যার জন্য মামলা করেন। আর এ মামলায় আসামী করা হয় স্বামীর ছোট ভাইকে।

উল্লেখ্য শহরতলীর বাবলাতলা ডাকবাংলার পশ্চিমপাশে ভৈরব নদের পাড়ে মিরাজ জমাদ্দার হত্যাকান্ডের ঘটিত হয়।

মামলায় প্রধান আসামি নিহত মিরাজের আপন ছোট ভাই  ইয়াসিন জমাদ্দার ইরানকে (২৪) আসামি করা হয়েছে। ইরান যশোর সদর উপজেলার পাগলাদহ মাঠপাড়া গ্রামের মানিক জমাদ্দারের ছেলে।

মামলায় বিবারণে জানা যায়, সাথি তার শ্বশুর বাড়ি পাগলাদহ মাফপাড়া গ্রামে বসবাস করে। মিরাজ জমাদ্দার ছোট স্ত্রী রেহেনা খাতুন মিমকে নিয়ে ডাকবাংলার পিছনে সিরাজুলের বাড়িতে বসবাস করে। মিরাজ জমাদ্দার দ্বিতীয় বিয়ে করায় দেবর ইয়াসিন জমাদ্দার ইরানের সাথে বিরোধ চলে আসছিলো। একই বাসায় ননদ ময়না ভাড়াটে হিসেবে বসবাস করে। ১৩ নভেম্বর বিকেলে মিরাজ জমাদ্দার বাইরে থেকে বাড়ি এসে সাথি খাতুনকে টিউবওয়েল চেপে পানি তুলে দিতে বলে। এনিয়ে মিরাজ জমাদ্দারের সাথে দেবর ইয়াসিন জমাদ্দার ইরানের কথাকাটাকাটি হয়। একপর্যায়ে দেবর ইয়াসিন জমাদ্দার ইরান আমার স্বামী মিরাজ জমাদ্দারের বুকের বাম পাশে খুন করার উদ্দেশ্যে ছুরিকাঘাত করে। এতে মিরাজ জমাদ্দার রক্তাত্ত জখম হয়। তাকে বিকেল ৫ টায় ২৫০ শয্যার যশোর জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হলে ৫ টা ৪০ মিনিটে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মিরাজ জমাদ্দার মারা যায়।

 মিরাজ হত্যাকান্ডের আসামি আটকের অভিযান চলছে। দ্রুতই আসামি আটক করা হবে।  বলে জানান মামলার তদন্ত কর্মকর্তা এস আই সাইফুল 

Leave a Reply